শুধু ১ ইউনিট বিদ্যুতের খরচ দিতে হচ্ছে দেড় হাজার টাকারও বেশি

0
36

রাজধানীর পাশেই কেরানীগঞ্জের পান গাওয়ে মার্কিন কোম্পানি এপিআর এনার্জির ৩০০ মেগা ওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্র । লোডশেডিং সামলানোর কথা বলে ২০১৭ সালে অনেকটা তরী ঘড়ি করেই নির্মাণ করা হয় বেশি উদপাদন পেয়ে ডিজেল চালিত এই বিদ্যুৎ কেন্দ্রটির । কিন্তু বাস্তবতা হলো গত দুই বছরের বেশির ভাগ সময়ই বন্ধ রাখতে হয় জরুরী ভিত্তিতে অনুমোদন পাওয়া কেন্দ্রটির উদপাদন । ফলে যতটুকু বিদ্যুৎই মিলেছে বসে বসে ক্যাপাসিটি চার্জ পরিশোধের চাপে তার দাম আকাশ ছোয়া । ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরে কেন্দ্রটির ইউনিট প্রতি উদপাদন ব্যায় পড়েছে রেকর্ড ১৫৮০ টাকা । যেখানে দেশে গড় বিদ্যুৎ উদপাদন খরচ ৬ টাকা এর মতো । ২০১৭-২০১৮ অর্থ বছরে বিদ্যুৎ মহা পরিকল্পনাকে পাশ কাটিয়ে অনুমোদন পাওয়া ডিজেল চালিত বেশির ভাগ কেন্দ্রের চিত্র প্রায় একই । ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরে তেল ভিত্তিক ৫ টি বেসরকারি কেন্দ্র থেকে সক্ষমতার  ১ শতাংশের ও কম বিদ্যুৎ এলেও রাষ্ট্রকে গুন্তে হয়েছে এক হাজার ছয়শত কোটি টাকার মতো । ফলে এসব কেন্দ্রের ইউনিট প্রতি খরচ দাড়ায় ৩১১ টাকা থেকে শুরু করে  ১৫৮০ টাকা পর্যন্ত । নানা সমালোচনার মধ্যেও বিদ্যুৎ পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার কথা বলে যেসব কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছিলো জরুরী ভিত্তিতে সেগুলোই এখন বাড়তি বোঝা হয়ে দাড়িয়েছে । তাই বিদ্যুৎ এর গড় উদপাদন এর উপর চাপ বাড়ানো ঠিক কতোটা যৌক্তিক পরিকল্পনার ভিত্তিতে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে সে প্রশ্ন আরো জোরালো হচ্ছে । বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড এর চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মোঃ বেলায়েত হোসেন বলেন আপনারা বলতে পারেন আমাদের কাজটি পারফেক্ট হয় নি কিন্তু তিনি এটিকে নেতিবাচক ভাবে দেখেন না । কেননা তারা নাকি পরিকল্পনা করেন ভবিষ্যৎ দেখে আজকে বর্তমান দেখে নয় । ভবিষ্যৎ এর কথা চিন্তা করেই এগুলো নির্মাণ করা হয়েছে আর শুধুমাত্র বিদ্যুতের চাপের সময়ই এগুলো খোলা থাকবে অন্য সময় গুলো এই পাওয়ার স্টেশন গুলো চালু রাখার প্রয়োজন হয় না । এগুলো শুধুমাত্র ইমারজেন্সি সময়েই চালু রাখা হবে । আর এগুলোর মেয়াদ ৫ বছর থাকবে তার পর এগুলোর চুক্তি আর বাড়ানো হবে না সিরকার থেকে তাদের এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে । বিশেষজ্ঞরা মনে করেন ভুল পরিকল্পনার জন্য বাড়তি বোঝা চাপছে সরকারের উপর । সামগ্রিক ভাবে যৌক্তিক দিক মূল্যায়ন করে অপ্রয়োজনীয় তেল ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র গুলোর সঙ্গে চুক্তি বাতিলের পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here