অল্প বয়সে বিয়ে ও ইসলাম

0
58

অল্প বয়সে বিয়ে ইসলাম সবসময় এটিকে সমর্থন করে । কেননা অল্প বয়সে বিয়ে করলে অনেক গুনাহ থেকে বাচা যায় । অল্প বয়সে বিয়ে ন আকরার ফলে কিশোর কিশোরীরা নানা অপকর্মে জড়িয়ে পড়ে যার ফলে তাদের আখিরাত ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে এবং তাদের মৌলিক নীতি হারিয়ে ফেলছে । অল্প বয়সে বিয়ের অনেক সুফল রয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে ভালো সুফল হচ্ছে আল্লাহ নিজে কুরআন এ ওয়াদা করেছে যে তুমি যদি দ্বীনের জন্য বিয়ে কর আর তুমি যদি অভাব গ্রস্থ হও তাহলে আমি তোমার অভাব দূর করে দিব । যেখানে আল্লাহ আমাদের কাছে এই ওয়াদা করতে পেরেছেন তাহলে নিশ্চয়ই এর মধ্যে ভাল কিছু আছে । তাড়াতাড়ি বিয়ে করলে যিনা ব্যাভিচার থেকেও বাচা যায় যা এতো বড় গুনাহ মানে কবীরা গুনাহ যা আল্লাহ কোনদিন ক্ষমা করবেন না । অল্প বয়সে বিয়ে করলে যৌবনের পূর্ণ তৃপ্তি পাওয়া যায়  যা বয়স্ক হয়ে বিয়ে করলে পাওয়া যায় না । বিয়ের ফজিলত বলে শেষ করা সম্ভব নয় কেননা আল্লাহ এই জিনিস এ এতো ফজিলত ও বরকত দিয়েছেন যে যা বলার বাহিরে । বিয়ে তাড়াতাড়ি করার ফলে আপনি বিবাহ বহির্ভূত কোন খারাপ কাজে জড়াবেন না । এর ফলে আপনার আখিরাত ও অনেক সুন্দর হবে এবং আপনি সহজেই নাজাত পাবেন । বিয়ে করলে আল্লাহ আয় রোজগার বাড়িয়ে দেন কাজে বরকত দান করেন কেননা কোন বান্দা বিয়ে করলে আল্লাহ তার উপর খুশি হন । বিয়ে এমন একটা বন্ধন যার শান্তি অন্য আর কোন কিছুর মধ্যে নেই । আর প্রত্যেক মুসলমানের জন্য বিয়ে একটি ফরজ ইবাদত যা প্রতিটি মুমিন ব্যাক্তির পালন করা ফরজে আইন । তাড়াতাড়ি বিয়ে করলে ইস্লামি অনুসাসন মেনে চলা চায় কেননা একজন দ্বীন বুঝলে আরেকজন খুব সহজেই তা বুঝে যায় বা শিখে ফেলে । প্রতিটা মুমিন ব্যাক্তিরই উচিৎ তাড়াতাড়ি বিয়ে করা এবং স্বামী স্ত্রী দুইজনেই আল্লাহর জন্য কাজ করা । তাহলে আল্লাহ তাদের অয়াভাব দূর করে দিবেন কাজে বরকত দিবেন ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here